June 21, 2024, 6:41 am

BCS
বাংলা সাহিত্য

বাংলা সাহিত্য বিষয়ক মঙ্গল কাব্য এর গুরুতপূর্ন প্রশ্ন ও উত্তর

Spread the love

০১.       প্রঃ  মঙ্গলকাব্য কি?

উঃ মঙ্গল অর্থ কল্যাণ। কল্যাণ কামনায় হিন্দু দেব-দেবীর প্রশংসামূলক কাহিনী কাব্য হচ্ছে মঙ্গল কাব্য।

০২.      প্রঃ মঙ্গলকাব্যের উদ্ভব, বিকাশ ও পরিণতিকাল কত ?

উঃ মঙ্গলকাব্যের উদ্ভবকাল পঞ্চদশ শতক, বিকাশকাল ষোড়শ শতক এবং পরিণতিকাল হচ্ছে আঠার শতক।

০৩.      প্রঃ মঙ্গল কাব্যের প্রধানত কয়টি অংশ ?

উঃ মঙ্গল কাব্যের প্রধানত দুটি অংশ। (ক) বারমাস্যা (খ)       চৌতিশা।

০৪.      প্রঃ মনসামঙ্গল কাব্যের আদি কবি কে ও বিখ্যাত কবি কারা ?

উঃ মনসামঙ্গল কাব্যের আদি কবি কানা হরিদত্ত এবং বিখ্যাত কবিরা হচ্ছেন নারায়ণ দেব, বিজয় গুপ্ত, বিপ্রদাস পিপিলাই             প্রমুখ।

বেহুলা লখিন্দর

০৫.     প্রঃ বিজয়গুপ্তের জন্মস্থান কোথায় ?

উঃ বরিশাল জেলার ফুল­শ্রী গ্রামে তার জন্ম, আনুমানিক সময়কাল ১৫৯৪ খ্রিঃ।

০৬.     প্রঃ বিজয়গুপ্তের কাব্যের নাম কি ?

উঃ পদ্মপুরাণ।

০৭.      প্রঃ মনসামঙ্গলের বাইশ জন কবিকে কি বলে ?

উঃ মনসামঙ্গলের বিখ্যাত বাইশজন কবিকে একত্রে ‘বাইশা’ বলে।

০৮.      প্রঃ মনসামঙ্গল কাব্যের প্রধান চরিত্র কি ?

উঃ চাঁদ সওদাগর, সনকা, লখিন্দর ও বেহুলা।

০৯.      প্রঃ মধ্যযুগের বাংলা সাহিত্যে একমাত্র প্রতিবাদী চরিত্র কোনটি?

উঃ মনসামঙ্গল কাব্যের নায়ক চাঁদ সওদাগর।

১০.       প্রঃ চণ্ডীমঙ্গল কাব্যের আদি কবি ও শ্রেষ্ঠ কবি কে ?

উঃ আদি কবি মানিক দত্ত এবং শ্রেষ্ঠ কবি মুকুন্দরাম চক্রবর্তী। মুকুন্দরাম চক্রবর্তীর আনুমানিক সময়কাল (১৫৪০                         থেকে ১৬০৪) খ্রিঃ।

১১.       প্রঃ তিনি কোথায় জন্মগ্রহণ করেন ?

উঃ বর্ধমান জেলার দামুন্যা গ্রামে তিনি জন্মগ্রহণ করেন।

১২.      প্রঃ তাঁকে কি বলে আখ্যায়িত করা হয় ?

উঃ দুঃখবর্ণনার কবি।

১৩.      প্রঃ মুকুন্দরাম চক্রবর্তীর উপাধি কি ছিল এবং কে এই উপাধি দেন ?

উঃ উপাধি ছিল কবিকঙ্কণ এবং রাজা রঘুনাথ রায় এই উপাধি দেন।

১৪.       প্রঃ মুকুন্দরাম চক্রবর্তীর বিখ্যাত দুটি গ্রন্থের নাম কি ?

উঃ বিখ্যাত গ্রন্থ দুটি হচ্ছে (ক) কালকেতু উপাখ্যান (খ) ধনপতি  সওদাগরের কাহিনী।

১৫.      প্রঃ চণ্ডীমঙ্গলের জীবন্ত চরিত্র কোনগুলো ?

উঃ বেনে মুরারি শীল, দাসী দুর্বলা ও ভাঁড়– দত্ত, নায়ক কালকেতু ও নায়িকা ফুল­রা।

মঙ্গল কাব্য

১৬.      প্রঃ ধর্মমঙ্গল কাব্যের কয়টি কাহিনী

উঃ ধর্মমঙ্গল কাব্যের কাহিনী দুটি। (ক) রাজা হরিশচন্দ্রের কাহিনী    (খ) লাউসেনের কাহিনী।

১৭.       প্রঃ প্রধানত মুসলমান লিখিত মঙ্গল কাব্য কোনটি ? শ্রেষ্ঠ কবি ও তাঁর কাব্যের নাম কি ?

উঃ কলিকামঙ্গল কাব্য, শ্রেষ্ঠ কবি সাবিরিদ খান ও কাব্য ‘বিদ্যাসুন্দরের কাহিনী’।

১৮.      প্রঃ মঙ্গলকাব্যের সর্বশেষ ধারা কোনটি ও সময়কাল কত ?

উঃ মঙ্গলকব্যের সর্বশেষ ধারা হচ্ছে অন্নদা মঙ্গলকাব্য এবং এটি ১৮ শতকের রচনা।

১৯.      প্রঃ অন্নদামঙ্গলের শ্রেষ্ঠ কবির নাম কি ? তাঁর পরিচয় দাও ?

উঃ শ্রেষ্ঠ কবি হচ্ছেন ভারতচন্দ্র রায় গুণাকর। তাঁর জীবনকাল ১৭১২ থেকে ১৭৬০ খ্রিঃ।

২০.      প্রঃ তিনি কোন রাজার সভাকবি ছিলেন ?

উঃ নবদ্বীপের  রাজা কৃষ্ণচন্দ্রের।

২১.      প্রঃ মধ্যযুগের ‘শেষ বড় কবি’কাকে বলে ?

উঃ ভারতচন্দ্রকে।

২২.      প্রঃ “না রবে প্রাসাদগুণ না হবে রসাল।অতএব কহি কথা যাবনী মিশাল কোন কবির রচনা ?

উঃ ভারতচন্দ্র রায় গুণাকরের রচনা।

২৩.      প্রঃ “আমার সন্তান যেন থাকে দুধে ভাতে”-কার রচনা ?

উঃ ভারতচন্দ্রের রচনা।

২৪.      প্রঃ মধ্যযুগের কোন সাহিত্য কর্মকে বাংলা ভাষার ‘মহাকাব্য’ কিংবা মধ্যযুগের বাংলা ‘উপন্যাস’বলা হয় ?

উঃ মঙ্গলকাব্য।

২৫.     প্রঃ মধ্যযুগের সর্ববৃহৎ ও প্রভাব বিস্তারকারী সাহিত্যকর্ম কোনটি?

উঃ মঙ্গলকাব্য।

 

 


Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category