June 17, 2024, 6:46 am

Bangladesh vs SriLanka 2nd Mirpur Test 2nd Day Daily Bangladesh 2205241322

শ্রীলঙ্কার ওপেনারদের বলিষ্ঠ জবাব

Spread the love

বাংলাদেশ দলের দ্বিতীয় দিনের শুরুটা তেমন ভালো হয়নি। মিরপুরে প্রথম দিনে দায়িত্ব নেওয়া লিটন দাস আজও সুবিধা করতে পারেননি। মুশফিক ছাড়া তাইজুল ইসলাম ছাড়া বাকিরা দুই অঙ্ক করতে পারেননি। অলআউট হয়ে স্বাগতিকদের ইনিংস থামে ৩৬৫ রানে।
এরপর আক্রমণাত্মকভাবে প্রথম ইনিংস শুরু করে শ্রীলঙ্কা। তারা ওডিআই স্টাইলে ব্যাট করে রান করেছে। সুযোগের সদ্ব্যবহার করে সফরকারীরা ২ উইকেট হারিয়ে দ্বিতীয় দিন শেষে ১৪৩ রান করে। শেষ বিকেলে কুশল মেন্ডিসকে ফিরিয়ে দলে কিছুটা স্বস্তি এনে দেন সাকিব আল হাসান।

প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশ থেকে ২২২ রানে পিছিয়ে থাকা সত্ত্বেও ঢাকা টেস্টে লঙ্কানরা এখনো আধিপত্য বিস্তার করছে। আগামীকাল ম্যাচের তৃতীয় দিনে আবার ব্যাটিং শুরু করবেন দিমুথ করুনারত্নে (৭০ রানে অপরাজিত) ও কাসুন রাজিথা (০ রানে অপরাজিত)।

দ্বিতীয় সেশনে প্রথম ইনিংসের শুরুতেই বিপাকে পড়ে শ্রীলঙ্কা। ইনিংসের প্রথম ওভারে ওপেনার ওশাদা ফার্নান্দোর বিপক্ষে ক্যাচের অনুরোধে সাড়া দেন আম্পায়ার। তবে রিভিউ নিয়ে বেঁচে যান ওষধা, ভাগ্য যায় বাংলাদেশের অধিনায়ক মুমিনুল হকের বিপক্ষে।

এরপর সময় গড়াতেই ম্যাচের দখল নেয় শ্রীলঙ্কা দল। তবে ইনিংসের ১৫তম ওভারে আরেকটি সুযোগ ছিল। তবে ভাগ্যও টাইগারদের সহায় হয়নি। বাঁহাতি স্পিনার তাইজুল ইসলামের এলবিডব্লিউর জোরালো আবেদন নাকচ করে দেন আম্পায়ার শরফুদ্দৌলা।

সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ করলেও আম্পায়ারের ডাকে রিভিউ বাংলাদেশ দলের বিপক্ষে যায়। ওষাধা তখন ৩৯ রানে ব্যাট করছিলেন। পরে 18তম ওভারে এই ওপেনার যখন 43 রানে ব্যাট করছিলেন তখন সাকিব আল হাসান একটি ক্যাচ মিস করেন।

জীবন পাওয়ার পর ওষাধা তার ক্যারিয়ারের পঞ্চম ৫০ পূর্ণ করেন। চা বিরতির আগে শ্রীলঙ্কা 22 ওভার ব্যাট করে বিনা উইকেটে 84 রান করে। ওষাধা ৫২ ও করুণারত্নে ৩১ রানে অপরাজিত ছিলেন।

চা বিরতির পর ইনিংসের ২৬তম ওভারে দুই ব্যাটসম্যানকে ফেরানোর পথ প্রশস্ত করতে সক্ষম হন পেসার এবাদত হোসেন। তবে ওষাধাকে ডাগআউটে ফিরিয়ে দিলেও ফেরানো যায়নি করুণারত্নেকে।

আম্পায়ার করুণারত্নের এলবিডব্লিউ অনুরোধে সাড়া না দিলে বাংলাদেশ দল কোনো রিভিউ নেয়নি। যদিও টিভি রিপ্লেতে দেখা যায়, অধিনায়ক মুমিনুল রিভিউ নিলে করুণারত্নে আউট হতেন। দুই বল পরে, স্লিপে অবস্থান নেওয়া শান্তর হাতে ঋষধা ক্যাচ দেন এবং ৯১ বলে ৮ চার ও একটি ছক্কায় ৫৭ রান করে ড্রেসিংরুমে ফেরেন।

তাইজুলের পরের ওভারে করুণারত্নের বলে শর্ট লেগে ক্যাচ ফেলে দেন জয়। সেই সময় ৩৭ রানে ব্যাট করছিলেন শ্রীলঙ্কা অধিনায়ক। টেস্ট ক্যারিয়ারের ২৯তম হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেওয়ার সুযোগ নেন তিনি। বাংলাদেশ দল তাকে ফিরিয়ে আনার চেষ্টায় রিভিউ নেয়, যা স্বাগতিকদের বিপক্ষেও যায়।

শেষ বিকেলে বাংলাদেশ দলকে স্বস্তি এনে দেন সাকিব। এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়েন কুসল মেন্ডিস। তিনি 49 বল খেলে 11 রান করেন।


Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category